নতুন প্রকাশনা সমূহ:

গোলমরিচের গুণসমূহ জেনে নিন আর নিজের অসুখ দূর করুন

মাংসের ঝাল ঝাল মজাদার কিছু রান্না করতে যাচ্ছেন? এতে গোলমরিচ দেবেন না, তা কি হয়? ছোট ছোট কালো গোল এই মসলা দিলে তরকারির স্বাদ যে পাল্টে যায়, তা ভোজনরসিকেরা জানেন। দেখতে একরত্তি, অথচ প্রবল তেজি এই মসলা নিজের গুণেই রান্নাঘরে অপরিহার্য হয়ে উঠেছে।

গোলমরিচকে বিশ্বের অন্যতম স্বাস্থ্যসম্মত মসলা হিসেবে মনে করা হয়। এর আছে নানা ঔষধি গুণাগুণ। সাধারণত জ্বর, সর্দি, গনোরিয়া ও পেট ফাঁপায় গোলমরিচ বেশ কার্যকর। তা ছাড়া গোলমরিচ ও পেঁয়াজবাটা একসঙ্গে চুলের জন্য পুষ্টিকর। কোষ্ঠকাঠিন্য, ক্ষুধামান্দ্য, রক্তাল্পতা, দাঁতের রোগ, ডায়রিয়া ও হৃদ্‌রোগেও উপকারী গোলমরিচ।

জেনে নিন গোলমরিচের নানা গুণের কথা:
১. গোলমরিচ মসলা ও ওষুধ হিসেবে ব্যবহার করা হয়। পিপারিন নামের রাসায়নিক উপাদানের কারণে এটি ঝাল ঝাল হয়। এই মসলা আয়রন, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ম্যাংগানিজ, জিংক, ক্রোমিয়াম, ভিটামিন এ ও সি এবং অন্যান্য উপাদানে ভরপুর।
গোলমরিচের গাছ২. গোলমরিচকে দারুণ প্রদাহনাশক হিসেবে ব্যবহার করা হয়।
৩. আবহাওয়া বদলের সময় ও ঠান্ডায় সর্দি-কাশির সমস্যা খুবই সাধারণ। শরীরের তাপমাত্রা বজায় রাখতে সাহায্য করে গোলমরিচ।
৪. পেটে হাইড্রোক্লোরিক অ্যাসিড বাড়িয়ে হজমে সাহায্য করে। ডায়রিয়া, কোষ্ঠকাঠিন্যর মতো সমস্যা দূর করতে ভালো হজম হওয়া জরুরি। পেটের গ্যাস হওয়া ঠেকাতে পারে গোলমরিচ।
৫. গোলমরিচ ক্ষুধামান্দ্য ও গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা দূর করে। ওজন কমাতে সাহায্য করে।
৬. শরীরে চর্বি দূর করতে পারে। এ ছাড়া অতিরিক্ত ক্যালরি পুড়িয়ে শরীররে শক্তি জোগায়।
৭. গোলমরিচে রয়েছে ডায়রিয়া, কলেরা ও আরথ্রাইটিস প্রতিরোধের ক্ষমতা। এটি রক্তপ্রবাহ বাড়িয়ে অস্থিসন্ধির ব্যথা কমাতে পারে।
৮. গোলমরিচে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট রয়েছে। শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ দূর করতে সাহায্য করে এ মসলা। তথ্যসূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

Leave a Reply

Diploma Engineers

ডিপ্লোমা -ইন- ইঞ্জিনিয়ার ব্লগ ’ হচ্ছে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের মতামত প্রকাশের একটি মাধ্যম যাতে ...
View

পূঞ্জিকা

November ২০২০
Sat Sun Mon Tue Wed Thu Fri
« Mar    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০